আমাদের প্রতিজ্ঞা উদ্ভাবন, জনসেবা, সততা, নিরপেক্ষ ও তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর পৌরসভা গড়েতোলা

হবিগঞ্জ পৌরসভা
Our Mission: Green, Clean and Smart City-Habiganj

সেবামুলক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দক্ষিন কোরিয়ান স্বেচ্ছাসেবী দলের দু’দিনের হবিগঞ্জ পৌরসভা সফর ॥ বাংলাদেশ-কোরিয়া ভ্রাতৃত্ব স্বরূপ অনুষ্ঠিত বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ॥ মেয়র আতাউর রহমান সেলিমের কৃতজ্ঞতা ॥

সেবামুলক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দক্ষিন কোরিয়ান স্বেচ্ছাসেবী দলের দু’দিনের হবিগঞ্জ পৌরসভা সফর ॥ বাংলাদেশ-কোরিয়া ভ্রাতৃত্ব স্বরূপ অনুষ্ঠিত বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ॥ মেয়র আতাউর রহমান সেলিমের কৃতজ্ঞতা ॥

ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প, কম্বল বিতরন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মতবিনিময় সভা সহ নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দক্ষিন কোরিয়ান স্বেচ্ছাসেবী দলের দুদিনের হবিগঞ্জ সফর। বুধবার সফরের দ্বিতীয় দিনে পিটিআই রোডে হবিগঞ্জ পৌর প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে দিনভর দক্ষিন কোরিয়ান স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘দাহাম ভলান্টিয়ার’ ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প পরিচালনা করে। এই ক্যাম্পে সেবা দানে নিয়োজিত ছিলেন টিম লিডার মিস পার্কের নেতৃত্বে সফরকারী দলের ১ জন ডাক্তার, ২ জন নার্স ও ১ জন ভলান্টিয়ার এবং হবিগঞ্জ পৌরসভার পক্ষে ছিলেন ১০ জন স্বেচ্ছাসেবী। ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম, হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মুখলেসুর রহমান উজ্জ্বল, পৌর কাউন্সিলর মোঃ জাহির উদ্দিন ও দক্ষিন কোরিয়ার দাহাম ভলান্টিয়ার সংগঠনের বাংলাদেশ প্রতিনিধি ও হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাবেদ ইকবাল চৌধুরী। দলে সমন্বয়কারী ছিলেন শাহআলম মোল্লা আজাদ। বুধবার মেডিক্যাল ক্যাম্পের দ্বিতীয় দিনে পৌর প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে প্রায় ৪ শ মহিলা ও বয়স্ক রোগী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা গ্রহন করেন। রোগীদের মাঝে বিনামূল্যে ঔষধও বিতরণ করা হয়।
বিকেল পৌনে ৫ টায় হবিগঞ্জ পৌরভবন প্রাঙ্গনে হবিগঞ্জ পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও সিডিসি’র দরিদ্র সদস্যদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। কম্বল বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র আতাউর রহমান সেলিম বলেন,‘কোরিয়ান অতিথিরা যেভাবে আমাদের দরিদ্র জনগনের সেবায় আত্মনিয়োগ করেছেন তা প্রশংসনীয়। তাদের এই দুই দিনের সেবামুলক কর্মকান্ড আমাদের মাঝে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।’ তিনি কোরিয়ান অতিথিদের আবারো বৃহৎ পরিসরে হবিগঞ্জ পৌরসভায় আসার আমন্ত্রন জানান। এছাড়াও এই দলের সাথে সমন্বয় করে হবিগঞ্জ সফরে তাদের নিয়ে আসায় হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাবেদ ইকবালকে ধন্যবাদ জানান।
দক্ষিন কোরিয়ান দাহাম ভলান্টিয়ার সংগঠনের টিম লিডার মিস পার্ক বলেন ‘আমারা সকলের সহযোগিতায় আমাদের পরিকল্পনা মতো সেবামুলক কর্মসূচী সুন্দরভাবে পালন করতে পেরেছি।’ তিনি হবিগঞ্জ সফরকে আনন্দঘন ও ফলপ্রসু হিসেবে আখ্যায়িত করেন।
সন্ধ্যায় পৌর টাউন হলে বাংলাদেশ-কোরিয়া ভ্রাতৃত্ব স্বরূপ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। হবিগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক সংগঠক সিদ্ধার্থ বিশ্বাস, আবুল ফজল, মোজাম্মেল হক বাবুল প্রমুখের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপস্থিত দর্শকদের ভূয়শী প্রশংসা কুড়ায়। দক্ষিন কোরিয়ান অতিথিবৃন্দ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সংগঠনের নৃত্য, মুখাভিনয় ইত্যাদির প্রশংসা করেন। টিম লিডার মিস পার্ক তার বক্তব্যে হবিগঞ্জে আবারো বড় পরিসরে সেবামুলক কর্মকান্ড নিয়ে আসার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।
পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিমের আমন্ত্রনে গত সোমবার রাতে হবিগঞ্জে পা রাখেন দক্ষিন কোরিয়ার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘দাহাম ভলান্টিয়ার’। মঙ্গলবার পৌর স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে শিশু, এতিমখানার ছাত্রদেরকে তারা বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেন। উপস্থিত ছিলেন ইউএসএইড এর সিলেট রিজিওন্যাল কো-অর্ডিনেটর আব্দুল মতিন। ওই দিন প্রায় ২৫০ জন রোগী সেবা নেন। পথ শিশুদের কম্বলও দেয়া হয়। দুদিনে প্রায় সাড়ে ৪ শ রোগী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা গ্রহন করেন। প্রায় ৫ শ রোগীকে বিনামূল্যে ঔষধ দেয়া হয়। #