আমাদের প্রতিজ্ঞা উদ্ভাবন, জনসেবা, সততা, নিরপেক্ষ ও তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর পৌরসভা গড়েতোলা

হবিগঞ্জ পৌরসভা
Our Mission: Green, Clean and Smart City-Habiganj

দিনব্যাপী পৌরকর মেলায় প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা আদায় ### সামনের দিনগুলোতে পৌরসভার কাজে স্বচ্ছতার এই দৃষ্টান্ত অব্যাহত রাখতে হবে-স্থানীয় সরকার পরিচালক মোঃ আসিব আহসান ### সাড়ে ৫ মাসের জার্নিতে সর্বক্ষেত্রে হবিগঞ্জবাসীর সহযোগিতা পেয়েছি-জেলা প্রশাসক দেবী চন্দ ### কর আদায় কার্যক্রম গতিশীল হলে হবিগঞ্জ পৌরসভার সুনাম বাড়বে এবং মন্ত্রনালয়েরও সুনজরে আসবে-মেয়র আতাউর রহমান সেলিম ###

দিনব্যাপী পৌরকর মেলায় প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা আদায় ### সামনের দিনগুলোতে পৌরসভার কাজে স্বচ্ছতার এই দৃষ্টান্ত অব্যাহত রাখতে হবে-স্থানীয় সরকার পরিচালক মোঃ আসিব আহসান ### সাড়ে ৫ মাসের জার্নিতে সর্বক্ষেত্রে হবিগঞ্জবাসীর সহযোগিতা পেয়েছি-জেলা প্রশাসক দেবী চন্দ ### কর আদায় কার্যক্রম গতিশীল হলে হবিগঞ্জ পৌরসভার সুনাম বাড়বে এবং মন্ত্রনালয়েরও সুনজরে আসবে-মেয়র আতাউর রহমান সেলিম ###

‘আমরা যে উন্নত বাংলাদেশের কথা বলছি তা অর্জন করতে হলে আমাদের করপ্রদান কার্যক্রম আরো জোরদার করতে হবে।’ হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌরকর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় হতে ভিডিও কনভারসেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের পরিচালক মোঃ আসিব আহসান। তিনি বলেন ‘স্থানীয় সরকার সাবলম্বী হওয়ার প্রতিফলন দেখা গেছে হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌরকর মেলার আয়োজনে মধ্য দিয়ে। সামনের দিনগুলোতে পৌরসভার কাজে স্বচ্ছতার এই দৃষ্টান্ত অব্যাহত রাখতে হবে।’ তিনি পৌরসভার উন্নয়নের ক্ষেত্রে জনগনের মতামতের ভিত্তিতে কার্যক্রম এগিয়ে নেয় হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
করমেলার উদ্বোধক হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক দেবী চন্দ বলেন,‘নাগরিকগন নিয়মিত কর প্রদান করলে পৌর মেয়র সহজে উন্নয়নকাজ সম্পাদন করতে পারেন। আমাদের শহরকে পরিচ্ছন্ন রাখা প্রতিটি নাগরিকে কর্তব্য।’ তিনি বলেন,‘ জেলা প্রশাসক হিসেবে হবিগঞ্জে আমার সাড়ে ৫ মাসের জার্নিতে সর্বক্ষেত্রে আমি হবিগঞ্জবাসীর সহযোগিতা পেয়েছি। হবিগঞ্জবাসীর প্রতি শুভকামনা ও কৃতজ্ঞতা রইল।’
সভাপতির বক্তব্যে হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম পৌরবাসীর প্রতি বলেন,‘আপনারা কর প্রদান করলে আমাদেরও দায়িত্ব বেড়ে যায়। কর আদায় কার্যক্রম গতিশীল হলে হবিগঞ্জ পৌরসভার সুনাম বাড়বে এবং মন্ত্রনালয়েরও সুনজরে আসবে।’
হবিগঞ্জ পৌরসভা প্রাঙ্গনে বৃহস্পতিবার সকালে অনুষ্ঠিত হয় পৌর করমেলা ২০২৩ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জুম লিংকে প্রধান অতিথি হিসেবে সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় হতে যুক্ত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের পরিচালক মোঃ আসিব আহসান। মেলা উদ্বোধন করে জেলা প্রশাসক দেবী চন্দ। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার হবিগঞ্জের উপপরিচালক মুহাম্মাদ সাদিকুর রহমান, হবিগঞ্জ চেম্বর অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রীর সভাপতি মিজানুর রহমান শামীম, সহসভাপতি আবু হেনা মোস্তফা কামাল, ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির সভাপতি শামছুল হুদা ও মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বাচ্চু। পৌরকাউন্সিলরদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন মোঃ জাহির উদ্দিন, মোহাম্মদ জুনায়েদ মিয়া, গৌতম কুমার রায়, প্রিয়াংকা সরকার ও শেখ সুমা জামান। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাবেদ ইকবাল চৌধুরী।
বিদায়ী জেলা প্রশাসক দেবী চন্দের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন মেয়র আতাউর রহমান সেলিম।
দিনব্যাপী এই করমেলায় প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা পৌরকর আদায় হয়। করদাতগনকে পৌরসভার পক্ষ হতে সম্মাননা সনদ দেয়া হয়। সকাল ১০ হতে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত নাগরিকবৃন্দ রিবেটের সুযোগসহ তাদের পৌরকর পরিশোধ করেন এবং সারচার্জ মুওকুফসহ পরিশোধ করেন পানির বিল।#